ইসলামী সমাজের উদ্যোগে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সন্ত্রাস, বোমাবাজি, দূর্ণীতি, নৈরাজ্য, জঙ্গিবাদ সহ সকল প্রকার অপতৎপরতার বিরুদ্ধে মানব বন্ধন শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠিত।

“ইসলামী সমাজ” এর আমীর হযরত সৈয়দ হুমায়ূন কবীর বলেছেন, দেশ স্বাধীনের ৪৩ বছর পর্যন্ত সমাজ ও রাষ্ট্র পরিচালনায় নীতি ও আদর্শের শুণ্যতা এবং সৃষ্টিকর্তা আল্লাহর সার্বভৌমত্বের প্রতিনিধিত্বকারী নেতার নেতৃত্ব প্রতিষ্ঠিত না থাকায় এবং আল্লাহর আইন-বিধান দ্বারা রাষ্ট্র পরিচালিত না হওয়ার কারণে দুর্নীতি, সন্ত্রাস, উগ্রতা, জঙ্গিতৎপরতা ও নৈরাজ্যসহ বিভিন্ন রকম অপতৎপরতা পুরো জাতিকে গ্রাস করে ফেলেছে। তিনি বলেন, সুশাসন ও ন্যায় বিচারের অভাবে জাতির সাধারণ মানুষ তাদের মৌলিক  অধিকার থেকে বঞ্চিত হয়ে দুর্ভোগ ও অশান্তিতে কাল কাটাচ্ছে এবং বিভিন্ন ইস্যুতে জাতির মানুষ দল, উপদলে বিভক্ত হয়ে সংঘাত ও সংঘর্ষে লিপ্ত হওয়ার মাধ্যমে বহুবিধ সমস্যায় জড়িয়ে গভীর সংকটে নিমজ্জিত।
রাজধানী ঢাকায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনের রাস্তায় আজ ২২/১২/২০১৪ ইং সকাল ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত ১ ঘন্টার জন্য অনুষ্ঠিত “শান্তিপূর্ণ মানব বন্ধন” অনুষ্ঠানে “ইসলামী সমাজ” এর আমীর হযরত সৈয়দ হুমায়ূন কবীর  বলেন,  দেশ ও জাতির এ নাজুক পরিস্থিতিতে সংকট উত্তরণের একমাত্র উপায় হচ্ছে-“মানুষের নয়! সার্বভৌমত্ব আইন-বিধান ও নিরংকুশ কর্র্তৃত্ব একমাত্র আল্লাহর” এ মহা সত্যের ভিত্তিতে জাতীয় ঐক্য গঠনের মাধ্যমে অল্লাহর রাসূল হযরত মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের অনুসরণ ও অনুকরণে সকল ধর্মের লোকদের জন্য যার যার ধর্মীয় অনুশাসন মেনে চলার সুযোগ রেখে সমাজ ও রাষ্ট্র পরিচালনায় সৃষ্টিকর্তা আল্লাহ প্রদত্ব জীবন ব্যাবস্থা “ইসলাম”এর আইন-বিধান প্রতিষ্ঠা করে মানুষের জীবনে সুশাসন ও ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠা করা এবং মানুষের মৌলিক অধিকার সহ সকল অধিকার আদায় ও সংরক্ষণ করা। তিনি বলেন, সংকট উত্তরণের লক্ষ্যেই “ইসলামী সমাজ” দুর্নীতি, সন্ত্রাস, উগ্রতা, জঙ্গিতৎপরতা ও নৈরাজ্যসহ বিভিন্ন রকম অপতৎপরতার বিরুদ্ধে দৃঢ় অবস্থান গ্রহন করে একমাত্র আল্লাহর সার্বভৌমত্বের ভিত্তিতে আল্লাহর রাসূল হযরত মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের প্রদর্শিত পদ্ধতিতে সমাজ ও রাষ্ট্রে “ইসলাম” এর আইন-বিধান প্রতিষ্ঠার শান্তিপূর্ণ আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে। শান্তিপূর্ণ আন্দোলনকে গতিশীল করার অংশ হিসেবেই আজকের এই “শান্তিপূর্ণ মানব বন্ধন”।
“ইসলামী সমাজ” এর উদ্যোগে অনুষ্ঠিত শান্তিপূর্ণ মানব বন্ধনে আল্লাহর সার্বভৌমত্বের প্রতিনিধিত্বকারী নেতা হযরত সৈয়দ হুমায়ূন কবীর জাতি, ধর্ম নির্বিশেষে সকলকে “মানুষের সার্বভৌমত্ব, দুর্নীতি, সন্ত্রাস, উগ্রতা, জঙ্গিতৎপরতা ও নৈরাজ্যসহ সকল অপতৎপরতা র্নিমূল করে মানুষের জীবনে সুশাসন ও ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে মানবাধিকার নিশ্চিত করার জন্য” ‘ইসলামী সমাজ’ পরিচালিত ‘ইসলাম’ এর আইন-বিধান প্রতিষ্ঠার শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে শামিল হওয়ার আহবান জানান এবং আগামী ২০১৫ ঈসায়ী সালের জানুয়ারী মাস ব্যাপী সারাদেশের গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠান সমূহে “প্রচার পত্র বিলি ও বিশেষ ব্যক্তিদের সাথে মতবিনিময়” কর্মসূচী সফল করার লক্ষ্যে প্রশাসনসহ দেশবাসী সকলকে প্রযোজনীয় সহযোগিতা প্রদানের জন্য তিনি অনুরোধ জানান। ‘মানব বন্ধনে’ ইসলামী সমাজ এর নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সর্বজনাব আবু জাফর মুহাম্মাদ ইকবাল, মুহাম্মাদ ইয়াছিন, মুহাম্মাদ ইউসূফ আলী, আকিক হাবিবুজ্জামান, সোলায়মান কবীর  প্রমূখ।

মানবতার কল্যাণে বার্তাটি শেয়ার করুন-

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *